চাঁদপুর। বৃহস্পতিবার ২৬ এপ্রিল ২০১৮। ১৩ বৈশাখ ১৪২৫। ৯ শাবান ১৪৩৯
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
একটি মাত্র শ্রেণিকক্ষে পাঠদান চলছে তেতৈশ্বর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে
মোঃ ফারুক চৌধুরী
২৬ এপ্রিল, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


শাহ্রাস্তিতে একটি মাত্র শ্রেণিকক্ষে পাঠদান চলছে তেতৈশ্বর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা যায়, চিতোষী পূর্ব ইউনিয়নের তেতৈশ্বর গ্রামে ১৯৭০ সালে হারিছ মিয়াসহ চারজন ব্যক্তি এলাকার শিক্ষার উন্নয়নে .৩৪ একর ভূমি দান করে এ বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেন। পরবর্তীতে তেতৈশ্বর গ্রামের নামানুসারে বিদ্যালয়ের নামকরণ করা হয় তেতৈশ্বর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। বিদ্যালয়ের শুরুতেই তিন কক্ষ বিশিষ্ট একটি টিন শেড বিল্ডিং নির্মাণ হয়। পরবর্তীতে স্থানীয় সাংসদ মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তমের মাধ্যমে ১৯৯৮ সালে সরকারি ভাবে দুই কক্ষ বিশিষ্ট একটি ভবন নির্মাণ করা হয়। পূর্বেকার ভবনটির উত্তরপাশ দেওয়ালসহ ভেঙ্গে পুকুরে পড়ে যায়। ২০১৪ সালে শিক্ষা বিভাগের সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা ভবনটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করে। বর্তমান সরকারের সময়ে দু-কক্ষ বিশিষ্ট যে ভবন নির্মাণ করা হয়েছিল এতে অফিস কক্ষ ছাড়া একটি মাত্র শ্রেণি কক্ষ রয়েছে। যেহেতু দুই শিফটে পাঠদান দেয়া হয়। দ্বিতীয় শিফটে তৃতীয় ও পঞ্চম শ্রেণির ক্লাস ঝুঁকিপূর্ণ পরিত্যক্ত ভবনেই বাধ্যতামূলক নিতে হয়। এতে শিক্ষার মান যেমনি খারাপ হচ্ছে তেমনি ঝুঁকির মাধ্যমে পাঠদান করতে হচ্ছে। এ বিষয়ে প্রধান শিক্ষক মন্জুরা বেগমের সাথে আলাপ করলে তিনি জানান, অতি সহসাই নূতন ভবন সরকারিভাবে যদি না হয় আসন্ন বর্ষা মৌসুমে ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে ক্লাস নিতে গেলে যে কোনো ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।



 


এই পাতার আরো খবর -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৩৭- সূরা সাফ্ফাত

১৮২ আয়াত, ৫ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

৭১। তাদের পূর্বেও  অগ্রবর্তীদের অধিকাংশ বিপথগামী হয়েছিল।

৭২। আমি তাদের মধ্যে ভীতি প্রদর্শনকারী প্রেরণ করেছিলাম।

৭৩। অতএব লক্ষ্য করুন, যাদেরকে ভীতিপ্রদর্শন করা হয়েছিল, তাদের পরিণতি কী হয়েছে।

৭৪। তবে আল্লাহর বাছাই করা বান্দাদের কথা ভিন্ন।

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


সঙ্গ দোষেই মানুষ খারাপ হয়।      


-প্রবাদ


নফস্কে দমন করাই সর্বপ্রথম জেহাদ।


ফটো গ্যালারি
করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ৫,১২,৪৯৬ ৮,২৪,৩৫,৪৮২
সুস্থ ৪,৫৬,০৭০ ৫,৮৪,৪৩,৫১৫
মৃত্যু ৭,৫৩১ ১৭,৯৯,২৯৪
দেশ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
১০২৬৬৯৯
পুরোন সংখ্যা