চাঁদপুর। বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮। ২ ফাল্গুন ১৪২৪। ২৭ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৯
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • চাঁদপুরের সুধীজন ও সাংবাদিক নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময়কালে নবাগত পুলিশ সুপার জিহাদুল কবির পিপিএম বলেন, যে কোনো মূল্যে চাঁদপুরের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি বজায় রাখা হবে। এছাড়া তিনি সড়কে ট্রাক চলাচল বন্ধ রাখার সবপ্রকার চেষ্টা অব্যাহত রাখবেন
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৩৫-সূরা ফাতির

৫৫ আয়াত, ৫ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

১৩। তিনি রাত্রিকে দিবসে প্রবিষ্ট করেন এবং দিবসকে রাত্রিতে প্রবিষ্ট করেন। তিনি সূর্য ও চন্দ্রকে কাজে নিয়োজিত করেছেন। প্রত্যেকটি আবর্তন করে এক নির্দিষ্ট মেয়াদ পর্যন্ত। ইনি আল্লাহ; তোমাদের পালনকর্তা, সা¤্রাজ্য তাঁরই। তাঁর পরিবর্তে তোমরা যাদেরকে ডাক, তারা তুচ্ছ খেজুর আঁটিরও অধিকারী নয়।

১৪। তোমরা তাদেরকে ডাকলে তারা তোমাদের সে ডাক শুনে না। শুনলেও তোমাদের ডাকে সাড়া দেয় না। কেয়ামতের দিন তারা তোমাদের শেরক অস্বীকার করবে। বস্তুতঃ আল্লাহর ন্যায় তোমাকে কেউ অবহিত করতে পারবে না।

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


মহৎ কারণে যার মৃত্যু ঘটে সে অপরাজেয়।

-বায়রন।


ঈর্ষা ও পরশ্রীকাতরতা থেকে দূরে থাকবে, কারণ অগ্নি যেমন কাঠ পুড়িয়ে খেয়ে ফেলে, সেইরূপ ঈর্ষাও সৎকার্য খেয়ে নিঃশেষ করে ফেলে।


ফটো গ্যালারি
চাঁদপুরে যুগান্তরের প্রকাশক ও ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকসহ ৫ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা
চাঁদপুর কণ্ঠ রিপোর্ট
১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+

সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও দি ফারমার্স ব্যাংক লিমিটেডের চেয়ারম্যান ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীরের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করায় চাঁদপুর আদালতে দৈনিক যুগান্তর পত্রিকার প্রকাশক ও ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকসহ ৫ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে একশ' কোটি টাকার মানহানি মামলা হয়েছে। চাঁদপুরের অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক সৈয়দ কায়সার আহমেদ ইউসুফ আগামী ২০ মের মধ্যে চাঁদপুরে সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জকে এ মামলার তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। গতকাল মঙ্গলবার সকালে মামলাটি করেছেন কচুয়া উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডঃ হেলাল উদ্দিন।

মামলার বিবাদীরা হচ্ছেন দৈনিক যুগান্তর পত্রিকার প্রকাশক সালমা ইসলাম, ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক সাইফুল আলম, চীফ রিপোর্টার এনাম আহম্মেদ, বার্তা সম্পাদক আবদুর রহমান ও রিপোর্টার হামিদ বিশ্বাস।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, বাংলাদেশ ব্যাংক অর্ডারের ৭৮ অনুচ্ছেদের বিধি মতে, কোনো ব্যক্তির ব্যক্তিগত ব্যাংক হিসাবের বিবরণ অন্য কেউ পাওয়ার কথা নয়। তথাপিও পরিবেশিত সংবাদে উল্লেখ করা হয়, ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীরের ব্যাংক হিসাবে গত ১৭ জুলাই ১৩ কোটি টাকা গ্রাহকের হিসাব থেকে ঢুকেছে। এ কথাটি যথাযথ নয়। তাছাড়া কোনো তফসিলি ব্যাংকের ঋণের টাকা সংশ্লিষ্ট শাখা থেকে গ্রাহককে প্রদান করা হয়। এতে চেয়ারম্যানের সংশ্লিষ্টতা থাকার সুযোগ নেই। বিবাদীরা অন্যায়ভাবে লাভবান হওয়ার উদ্দেশ্যে সমাজের বিভিন্ন গুণী, সম্মানী ব্যক্তিবর্গের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময়ে অসত্য, ভিত্তিহীন ও মানহানিকর প্রতিবেদন প্রকাশ করে। সকল বিবাদীর প্রত্যক্ষ সহযোগিতায় মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ করে স্থানীয়ভাবে চাঁদপুর জেলাসহ সমগ্র দেশ ও বহির্বিশ্বে ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীরের সম্মান ক্ষুণ্ন করা হয়েছে। এতে তাঁর একশ' কোটি টাকার মান সম্মান ক্ষুণ্ন হয়েছে।

মামলাটি আমলে নিয়ে বিচারক আগামী ২০ মের মধ্যে ইন্সপেক্টরের নীচে নয় এমন একজন কর্মকর্তা দিয়ে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়ার জন্যে সংশ্লিষ্ট থানার অফিসার ইনচার্জকে নির্দেশ দেন।

মামলার বাদী অ্যাডঃ হেলাল উদ্দিন বলেন, যুগান্তর পত্রিকায় যে নিউজ করা হয়েছে তা ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত। আশা করছি ন্যায় বিচার পাবো। তিনি আরো বলেন, ইতঃপূর্বে ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীরের বিরুদ্ধে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ করায় একই আদালতে আরো একটি মামলা চলমান আছে। মামলা নম্বর সি-আর ২১/০১৪। যার বিবাদী প্রথম চারজন। বিবাদীরা এ মামলায় নিয়মিত হাজিরা দিয়ে থাকেন।

এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
১৬৭৬২৭
পুরোন সংখ্যা