চাঁদপুর। বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮। ২ ফাল্গুন ১৪২৪। ২৭ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৯
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • চাঁদপুরের সুধীজন ও সাংবাদিক নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময়কালে নবাগত পুলিশ সুপার জিহাদুল কবির পিপিএম বলেন, যে কোনো মূল্যে চাঁদপুরের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি বজায় রাখা হবে। এছাড়া তিনি সড়কে ট্রাক চলাচল বন্ধ রাখার সবপ্রকার চেষ্টা অব্যাহত রাখবেন
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৩৫-সূরা ফাতির

৫৫ আয়াত, ৫ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

১৩। তিনি রাত্রিকে দিবসে প্রবিষ্ট করেন এবং দিবসকে রাত্রিতে প্রবিষ্ট করেন। তিনি সূর্য ও চন্দ্রকে কাজে নিয়োজিত করেছেন। প্রত্যেকটি আবর্তন করে এক নির্দিষ্ট মেয়াদ পর্যন্ত। ইনি আল্লাহ; তোমাদের পালনকর্তা, সা¤্রাজ্য তাঁরই। তাঁর পরিবর্তে তোমরা যাদেরকে ডাক, তারা তুচ্ছ খেজুর আঁটিরও অধিকারী নয়।

১৪। তোমরা তাদেরকে ডাকলে তারা তোমাদের সে ডাক শুনে না। শুনলেও তোমাদের ডাকে সাড়া দেয় না। কেয়ামতের দিন তারা তোমাদের শেরক অস্বীকার করবে। বস্তুতঃ আল্লাহর ন্যায় তোমাকে কেউ অবহিত করতে পারবে না।

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


মহৎ কারণে যার মৃত্যু ঘটে সে অপরাজেয়।

-বায়রন।


ঈর্ষা ও পরশ্রীকাতরতা থেকে দূরে থাকবে, কারণ অগ্নি যেমন কাঠ পুড়িয়ে খেয়ে ফেলে, সেইরূপ ঈর্ষাও সৎকার্য খেয়ে নিঃশেষ করে ফেলে।


ফটো গ্যালারি
ড. জাবেদ পাটোয়ারীকে আইজিপি হিসেবে চাঁদপুরে স্বাগতম
১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+

ঘরের ছেলে ঘরে আসছেন-এতে উল্লসিত ও উচ্ছ্বসিত হবার এতো কী আছে! কিন্তু তারপরও চাঁদপুরে আজ অনেক উল্লাস ও উচ্ছ্বাস লক্ষ্য করা যাচ্ছে। কারণ, চাঁদপুরের যে কৃতী ছেলে আজ চাঁদপুর আসছেন, তিনি তো সাধারণ হয়ে নয়, অসাধারণ হয়েই আজ চাঁদপুর আসছেন। তাঁর নাম ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী। তিনি সর্বশেষ চাঁদপুরে এসেছিলেন পুলিশের অতিরিক্ত আইজি (এসবি) হিসেবে। আর আজকে আসছেন ইন্সপেক্টর জেনারেল অব পুলিশ (আইজিপি) হিসেবে। এজন্যে আনন্দাপ্লুত জেলাবাসীর পক্ষ থেকে চাঁদপুরে তাঁকে জানাই স্বাগতম।

চাঁদপুর জেলার দুজন সৌভাগ্যবান ব্যক্তি বাংলাদেশ পুলিশের প্রধান তথা মহাপুলিশ পরিদর্শক (আইজিপি) হতে পেরেছেন। এঁদের মধ্যে প্রথমজন হচ্ছেন হোসেন আহমেদ, যিনি ছিলেন শাহরাস্তি উপজেলার কৃতী সন্তান এবং দেশের ৬ষ্ঠ আইজিপি হিসেবে তাঁর কর্মকাল ছিলো ২১ নভেম্বর ১৯৭৫ থেকে ২৬ আগস্ট ১৯৭৮। আর দ্বিতীয় জনই হচ্ছেন চাঁদপুর সদর উপজেলার মান্দারি গ্রামের কৃতী সন্তান ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বিপিএম (বার), দেশের ২৮তম আইজিপি হিসেবে তাঁর কার্যকাল শুরু হয়েছে গত ৩১ জানুয়ারি ২০১৮। আরো ছয় মাস পূর্বে এই পদে তাঁর কার্যকাল শুরু করার কথা থাকলেও অনিবার্য কারণে তা পিছিয়ে যায়। সেজন্যে চাঁদপুর জেলাবাসীসহ পুরো দেশবাসী কষ্টকর অপেক্ষার যন্ত্রণায় ভুগতে হয়। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী অবশেষে বর্তমান পুলিশের সবচে' যোগ্যতম ব্যক্তিকে পুলিশের সর্বোচ্চ পদে নিয়োগ প্রদান করে উক্ত যন্ত্রণার অবসান ঘটিয়েছেন। সেজন্যে তাঁর প্রতি অগাধ শ্রদ্ধা এবং অপরিসীম কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

বাংলাদেশ পুলিশে প্রবাদতুল্য একজন সৎ কর্মকর্তা হচ্ছেন ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী। তিনি পুলিশের চারটি সর্বোচ্চ সম্মানজনক পদক পেয়েছেন। তিনি অসম সাহসিকতার জন্যে একবার ও সেবার জন্যে একবার বাংলাদেশ পুলিশ মেডেল (বিপিএম) এবং সাহসিকতার জন্যে একবার ও সেবার জন্যে একবার প্রেসিডেন্ট পুলিশ মেডেল (পিপিএম) পেয়েছেন। তারপরও তিনি এমন মেডেল প্রাপ্তির যোগ্যতা অর্জন করেছিলেন, কিন্তু সীমাবদ্ধতা বা বারের জন্যে সেই বিরল প্রাপ্তি সম্ভবপর হয়ে উঠেনি।

অনেক প্রচ্ছন্ন প্রতিবন্ধকতা অতিক্রম করে ড. জাবেদ পাটোয়ারী আইজিপি হয়ে বাংলাদেশ পুলিশে সৎ লোকের সর্বোচ্চ মূল্যায়নের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন এবং পুলিশের মর্যাদাও বৃদ্ধি করেছেন। তিনি কতোদিন এই পদে অধিষ্ঠিত থাকেন বা থাকবেন-সেটা বড় কথা নয়, তাঁর মতো একজন চৌকষ কর্মকর্তা এই পদটিকে অলঙ্কৃত করে চাঁদপুর জেলাবাসীকে ধন্য ও কৃতার্থ করেছেন সেটাই অনেক বড় কথা বলে আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি।

এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
১৬৮৫২২
পুরোন সংখ্যা