চাঁদপুর, মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৭ আশ্বিন ১৪২৭, ৪ সফর ১৪৪২
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • --
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৭৬-সূরা দাহ্র বা ইন্সান


৩১ আয়াত, ২ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


১৯। তাহাদিগকে পরিবেশন করিবে চিরকিশোরগণ, যখন তুমি উহাদিগকে দেখিবে তখন মনে করিবে উহারা যেনো বিক্ষিপ্ত মুক্তা,


২০। তুমি যখন সেথায় দেখিবে, দেখিতে পাইবে ভোগ-বিলাসের উপকরণ এবং বিশাল রাজ্য।


 


দৈহিক সৌন্দর্যকে অনাবৃত রাখার চেয়ে আবৃত্ত রাখাই ভালো। -ফ্লেচার।


 


 


 


পুরাতন কাপড় পরিধান করো, অর্ধপেট ভরিয়া পানাহার করো, ইহা নবীসুলভ কার্যের অংশ বিশেষ ।


 


 


ফটো গ্যালারি
বীর প্রতীক মমিন উল্লাহ পাটোয়ারী একাডেমি
সাফল্য ও সুনামের সাথে পথচলা
শিক্ষাঙ্গন প্রতিবেদক
২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


শ্রেণিকার্যক্রমে শতভাগ পাস আর সহ-পাঠ্যক্রমিকে সাফল্যের ধারাবাহিকতা অক্ষুণ্ন রেখে এগিয়ে চলছে বীর প্রতীক মমিন উল্লাহ পাটোয়ারী একাডেমি। চাঁদপুর সদর উপজেলার মৈশাদী ইউনিয়নে ১০৮ শতাংশ জমির উপর অবস্থিত এ একাডেমিটি। ২০১৬ সালে এ একাডেমি প্রতিষ্ঠা করেন একাত্তরের সূর্যসন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ মমিন উল্লাহ পাটোয়ারী বীর প্রতীক। প্রতিষ্ঠানটির প্রথম অধ্যক্ষ ছিলেন অধ্যাপক হারুন অর রশিদ। বর্তমানে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন এমদাদুল হক।



 



অফিসসূত্রে জানা যায়, বীর প্রতীক মমিন উল্লাহ পাটোয়ারী একাডেমিতে ৬ষ্ঠ থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত শ্রেণিকার্যক্রম পরিচালিত হয়। প্রতিষ্ঠানটিতে ১৬ জন শিক্ষক কর্মরত রয়েছেন। ৩০টি শ্রেণিকক্ষে ২৬৫ জন শিক্ষার্থীকে পাঠদান করা হয়। এ একাডেমির শিক্ষার্থীরা পড়াশোনায় যেমন ঈর্ষণীয় ফলাফল করছে, তেমনি খেলাধুলা, সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা, সংগীত, বিতর্কেও তাদের সাফল্য ঈর্ষণীয়।



 



একাডেমি শিক্ষকরা জানান, গত ২ বছরের দুটি জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট পরীক্ষায় এ বিদ্যানিকেতনের শিক্ষার্থীরা শতভাগ পাস করেছে। ২০১৮ সালে ২১ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ১ জন জিপিএ-৫, ১৬ জন এ গ্রেড, ২ জন এ মাইনাস ও ২ জন বি গ্রেডে উত্তীর্ণ হয়। ২০১৯ সালে ৪১ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ৩ জন জিপিএ-৫, ৩৪ জন এ গ্রেড, ৩ জন এ মাইনাস ও ১ জন বি গ্রেডে উত্তীর্ণ হয়েছে।



 



দেশের অন্যান্য প্রসিদ্ধ একাডেমির মতো বীর প্রতীক মমিন উল্লাহ পাটোয়ারী একাডেমিতে রয়েছে আড়াই হাজার বই সমৃদ্ধ অত্যাধুনিক পাঠাগার, রয়েছে আধুনিক সুবিধা সম্বলিত ৩টি বিজ্ঞানাগার এবং ৪০টি কম্পিউটার সমৃদ্ধ সুবিশাল কম্পিউটার ল্যাব। বর্তমান তথ্যপ্রযুক্তির দিক দিয়ে শিক্ষার্থীদের এগিয়ে নিতে গুরুত্বের সাথে কম্পিউটার শিক্ষা বিষয়টিকে দেখছে একাডেমি কর্তৃপক্ষ। একাডেমিতে রয়েছে সুবিশাল খেলার মাঠ ও বাস্কেটবল খেলার সুবিধা। যা শিক্ষার্থীদের মন প্রফুল্ল রাখে।



 



একাডেমির শিক্ষকদের সূত্রে জানা যায়, পড়াশোনার পাশাপাশি ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক চর্চাকে তারা গুরুত্ব দিয়ে থাকেন। ফলে এ একাডেমির শিক্ষার্থীরা সহপাঠক্রমিক কার্যক্রমেও এগিয়ে। এর মধ্যে খেলাধুলায় সবচেয়ে বেশি সাফল্য অর্জন করেছে শিক্ষার্থীরা। চলতি বছরের ৪৯তম জাতীয় শীতকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় একাডেমির শিক্ষার্থীরা উপজেলা, জেলা, উপ-আঞ্চলিক ও আঞ্চলিক পর্যায়ে টেবিল টেনিস (বালক-বালিকা), বাস্কেটবল (বালক-বালিকা) ও ভলিবল (বালক-বালিকা) খেলায় মোট ২২টি ট্রপি অর্জন করে। ৪৮তম জাতীয় গ্রীষ্মকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় হ্যান্ডবল (বালক-বালিকা) জেলার রানার্সআপ হয়। ৪৭তম ও ৪৮তম জাতীয় শীতকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় একাডেমির শিক্ষার্থীরা টেবিল টেনিস (বালক-বালিকা) একক ও দ্বৈতে উপজেলা, জেলা, উপ-আঞ্চলিক পর্যায়ে চ্যাম্পিয়ন হয়ে আঞ্চলিক পর্যায়ে রানার্সআপ হয়েছে। এছাড়া চাঁদপুরে সরকারি ও বেসরকারিভাবে আয়োজিত বিভিন্ন সংগীত ও বিতর্ক প্রতিযোগিতায়ও অংশগ্রহণ করে সাফল্যের ধারাবাহিকতা ধরে রেখেছে প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা।



 



প্রতিষ্ঠানটির এতো সফলতার মাঝেও রয়েছে নানা প্রতিবন্ধকতা। অনেক অভিভাবক এ একাডেমিতে ছেলে-মেয়ে ভর্তি করার ইচ্ছে পোষণ করলেও যোগাযোগব্যবস্থা ভালো না থাকায় ভর্তি করাতে চান না। এ প্রতিবন্ধকতার অন্যতম কারণ চাঁদপুর শহরের সাথে সরাসরি যোগাযোগব্যবস্থা না থাকা। এছাড়া গ্রামীণ মানুষদের শিক্ষা সম্পর্কে অসচেতনতা এখনো ততোটা পাল্টায়নি বিধায় এটাও একটি প্রতিবন্ধকতা। যথাযথ কর্তৃপক্ষের আন্তরিকতায় এসব প্রতিবন্ধকতাও দূর হবে বলে সচেতন মানুষ প্রত্যাশা করেন।



 



একাডেমির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোঃ মমিন উল্লাহ পাটোয়ারী বীর প্রতীক বলেন, সাফল্যের সঙ্গে এ প্রতিষ্ঠানটি শিক্ষাদান করে যাচ্ছে। আমি বিশ্বাস করি, একসময় এই একাডেমিটি সারাদেশে একটি মডেল বিদ্যানিকেতন হিসেবে আত্মপ্রকাশ করবে। এই একাডেমির শিক্ষার্থীরা দেশসেরা বিশ্ববিদ্যালয়ে নিজেদের জায়গা করে নেবে। প্রকৃত শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে দেশের মহৎ সেবক হয়ে উঠবে। এজন্যে তিনি সকলের আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেন।



 


করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ৩,৮৭,২৯৫ ৩,৯৬,৩৮,১৮৮
সুস্থ ৩,০২,২৯৮ ২,৯৬,৭৮,৪৪৬
মৃত্যু ৫,৬৪৬ ১১,০৯,৮৩৮
দেশ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
১৩২৮০৫৯
পুরোন সংখ্যা