চাঁদপুর, সোমবার ১৭ জুন ২০১৯, ৩ আষাঢ় ১৪২৬, ১৩ শাওয়াল ১৪৪০
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • জমে উঠেছে চাঁদপুরের আঞ্চলিক এসএমই পণ্য মেলা
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৬৫-সূরা তালাক


১২ আয়াত, ২ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


২। উহাদের 'ইদ্দাত পূরণের কাল আসন্ন হইলে তোমরা হয় যথাবিধি উহাদিগকে রাখিয়া দিবে, না হয় উহাদিগকে যথাবিধি পরিত্যাগ করিবে এবং তোমাদের মধ্য হইতে দুইজন ন্যায়পরায়ণ লোককে সাক্ষী রাখিবে; আর তোমরা আল্লাহর জন্য সঠিক সাক্ষ্য দিবে। ইহা দ্বারা তোমাদের মধ্যে যে কেহ আল্লাহ ও আখিরাতে বিশ্বাস করে তাহাকে উপদেশ দেওয়া হইতেছে। যে কেহ আল্লাহকে ভয় করে আল্লাহ তাহার পথ করিয়া দিবেন।


 


 


 


assets/data_files/web

ঘুম পরিশ্রমী মানুষকে সৌন্দর্য প্রদান করে।


-টমাস ডেককার।


 


 


 


 


নামাজ হৃদয়ের জ্যোতি, সদ্কা (বদান্যতা) উহার আলো এবং সবুর উহার উজ্জ্বলতা।


 


 


ফটো গ্যালারি
বুদ্ধিবৃত্তিক চর্চায় চাঁদপুর কণ্ঠের অবদান অনেক
শহীদ উল্লাহ মাস্টার
১৭ জুন, ২০১৯ ০৩:১৫:২৪
প্রিন্টঅ-অ+




১৭ জুন ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ। চাঁদপুর কণ্ঠের ২৫ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। মনে হয় এই তো সেদিন। দেখতে দেখতে পঁচিশ বছর পেরিয়ে ছাব্বিশে পদার্পণ। চাঁদপুর কণ্ঠ চাঁদপুর জেলার সর্বপ্রথম সরকারি বিজ্ঞাপন তালিকাভুক্ত পত্রিকা।

সেই যে শুরু হলো, ধীরে এবং সতর্ক পদক্ষেপে জ্ঞান-বিজ্ঞান, ধর্ম-কর্ম-গণতন্ত্র, মানুষের অধিকার ও সমাজের জঞ্জাল, মুক্তচিন্তা ইত্যাদি সকল ক্ষেত্রে অনির্বচনীয় অবদান রেখে চলেছে আজও। সৃষ্টিশীলতার মাধ্যমে লেখক, কবি, প্রাবন্ধিক, চাঁদপুরের ইতিহাস-ঐতিহ্য বিষয়ক রচয়িতার জন্ম দিয়েছে।

স্বাধীনতা পূর্বকালে চাঁদপুরের মহকুমা প্রশাসন ও এস.ডি.ও. সালাউদ্দিন আহমেদের পৃষ্ঠপোষকতায় ‘অন্যগ্রাম’ নামে মাসিক পত্রিকাটির অবদান তুলনীয়। সাড়া জাগানো ঐ পত্রিকাটি অনেক জ্ঞানমূলক প্রবন্ধ, কবি ও লেখক সৃষ্টি করেছিলো। কবি মোঃ ইদ্রিছ মিয়া ও প্রাবন্ধিক সরোজকুমার সরকারের হাতে ‘অন্যগ্রাম’-এর সৃষ্টি।

চাঁদপুর কণ্ঠ এখন দেশে-বিদেশে এমনকি পৃথিবীর সর্বত্র প্রবাসী চাঁদপুরবাসীদের প্রতিদিনের খোরাক।

নতুন প্রজন্মের অনেক বিতার্কিক তথা যুক্তিবাদী সৃষ্টিতে বিশেষ করে ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে বুদ্ধিবৃত্তিক চর্চায় চাঁদপুর কণ্ঠের রয়েছে অনেক অবদান। শুরু থেকেই আমি এ পত্রিকার একজন নিয়মিত পাঠক। একদিন পত্রিকা না পেলে সময় কাটে না, মির্জা জাকির, হাসান খান মিসুকে বিরক্ত করি।

জীবন-জগৎ, চাঁদপুরের সার্বিক আবহ, রাজনীতি, সমাজনীতি, শিক্ষার বিকাশ, বিজ্ঞান, সাহিত্য, দর্শনসহ সকল কিছু ধারণ করে বলেই আমি এ পত্রিকার একজন ভক্ত পাঠক।

আমার প্রিয়, একমাত্র প্রিয় পত্রিকা চাঁদপুর কন্ঠ। আমি এটির উত্তরোত্তর সমৃদ্ধি কামনা করি। আমার দৃঢ় বিশ্বাস, অচিরেই পত্রিকাটি জাতীয় দৈনিকে পরিণত হবে।

লেখক : শহীদ উল্লাহ মাস্টার, সহ-সভাপতি, চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগ; সভাপতি, গভার্নিং বডি, বাবুরহাট উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ।

 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৬৪৮৪৯৭
পুরোন সংখ্যা