চাঁদপুর, রোববার ২ জুন ২০১৯, ১৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৭ রমজান ১৪৪০
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫০-সূরা কাফ্


৪৫ আয়াত, ৩ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


২৫। যখন উহারা তাহার নিকট উপস্থিত হইয়া বলিল, 'সালাম।' উত্তরে সে বলিল, 'সালাম।' ইহারা তো অপরিচিত লোক।


২৬। অতঃপর ইব্রাহীম তাহার স্ত্রীর নিকট গেল এবং একটি মাংস গো-বৎস ভাজা লইয়া আসিল।


২৭। ও তাহাদের সামনে রাখিল এবং বলিল, তোমরা খাইতেছ না কেন?


 


 


assets/data_files/web

নতুন দিনই নতুন চাহিদা এবং নতুন দৃষ্টিভঙ্গীর উদয় করে। -জন লিডগেট।


যে মানুষের প্রতি কৃতজ্ঞ নয়, সে আল্লাহর প্রতি কৃতজ্ঞ নয়।


 


 


ফটো গ্যালারি
লিচু খাওয়া নিয়ে আতঙ্ক যা বললেন বিশেষজ্ঞরা
কৃষিকণ্ঠ প্রতিবেদক
০২ জুন, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


লিচু মৌসুমি ফল হিসেবে বেশ জনপ্রিয়। বিশেষ করে শিশুরা লিচু খেতে খুব পছন্দ করে। তবে গত দুই বছর আগে ভারত ও বাংলাদেশে কিছু এলাকায় লিচু খেয়ে শিশু মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। ধারণা করা হয় খালি পেটে লিচু খাওয়ায় এমন দুর্ঘটনা ঘটেছে। এ নিয়ে বিভিন্ন সংবাদ প্রকাশিত হয়।



গত কদিন ধরে পুরানো ওই নিউজগুলোই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। তাই এই লিচু খাওয়া নিয়ে এখন অনেকের মাঝে ভয় কাজ করছে। আতঙ্ক ছড়িয়েছে মানুষের মাঝে।



সোশ্যাল মিডিয়ায় অতিরঞ্জিতভাবে অনেক বিষয় প্রচার করা হয়েছে। যাতে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা আপত্তি জানিয়েছেন। তারা অনেকে একে গুজব হিসেবেও আখ্যায়িত করেছেন।



এ বিষয়ে বিভিন্ন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা কৃষিকণ্ঠকে জানিয়েছেন গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শ। তারা জানিয়েছেন লিচু খাওয়া নিয়ে অযথা আতংকের কোনো কারণ নেই।



এ বিষয়ে চাঁদপুর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাঃ আনয়ারুল আজিম কৃষিকণ্ঠকে বলেন, খালি পেটে অতিরিক্ত লিচু খেলেই যে মৃত্যু হবে বিষয়টি এমন নয়। লিচুতে বিষাক্ত কিছু মেশালে সেই লিচুতে ক্ষতি হতে পারে, অন্যথায় নয়।



ফরমালিনের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ফরমালিনযুক্ত খাবার খুবই ক্ষতিকর। ফরমালিন দেয়া ফল খেলে লিভার, কিডনিসহ পেটের পীড়ার সমস্যা হতে পারে।



নিপা ভাইরাসের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, নিপা ভাইরাস শুধু খেজুরের রসে নয়। ফল থেকেও হতে পারে। কারণ গাছে থাকতেই ফল বিভিন্ন পশুপাখি খেয়ে থাকে। এই ভাইরাসে মৃত্যু হতে পারে।



এ বিষয়ে ডায়াবেটিস হাসপাতালের সিনিয়র মেডিকেল অফিসার ডাঃ মোঃ খবির উদ্দিন বলেন, লিচুতে হাইপোগ্লাইসিন নামে একটি রাসায়নিক থাকে। এই হাইপোগ্লাইসিন শরীরে শর্করা তৈরি রোধ করে। এর ফলে শিশুরা যদি খালি পেটে অতিরিক্ত লিচু খায় তবে শরীরে শর্করার পরিমাণ অত্যন্ত কমে যায়। ফলে মৃত্যু হতে পারে। আর যারা ডায়াবেটিস এ আক্রান্ত তাদের এ ফল পরিমাণে কম খাওয়া ভালো। কারণ, লিচুতে পেট পাপা, বদহজম ও বমি করার ভয় থাকে বেশি।



লিচু খাওয়া নিয়ে স্বাস্থ্যগত ঝুঁকির এ সত্যতা জানতে কথা হয় চাঁদপুর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের শিশু বিশেষঞ্জ ডাঃ অলিউর রহমান মজুমদারের সঙ্গে। তিনি বলেন, খালি পেটে লিচু খাওয়া নিয়ে বিতর্ক থাকতে পারে। তবে এ নিয়ে আমাদের ব্যক্তিগত কোনো গবেষণা নেই। এছাড়া এটাও বলা যাবে না যে খালি পেটে অতিরিক্ত লিচু খেলে শিশুদের মৃত্যু হতে পারে। লিচুতে বিষাক্ত কিছু মেশালে সেই লিচুতে ক্ষতি হতে পারে, অন্যথায় নয়। তবে ফরমালিন বা বিষাক্ত কীটনাশক মেশানো না হলে ওই লিচু সুস্বাদু। লিচুতে রযয়েছে ভিটামিন-সি যা ত্বক, দাঁত ও হাড়ের জন্য ভালো। নানা রকম চর্মরোগ ও স্কার্ভিং দূর করতে সাহায্য করে। লিচুতে থাকা ক্যালসিয়াম দেহের হাড় গঠন করে ও সুস্থতা বজায় রাখতে সাহায্য করে। তিনি বলেন, ৪ বছর পর্যন্ত শিশুদের লিচু খাওয়ানো উচিত নয়। ৪ বছর পরে একটি লিচু খাওয়ানো যেতে পারে। আর বড়দের একসঙ্গে ৫টির বেশি লিচু না খাওয়াই ভালো।



 



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৬৮৯২৭৬
পুরোন সংখ্যা