চাঁদপুর। বুধবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭। ৫ আশ্বিন ১৪২৪। ২৮ জ‌িলহজ ১৪৩৮
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
ট্রান্সপ্লান্টার যন্ত্রের প্রদর্শনী ও মাঠ দিবস
আধুনিক চাষাবাদে কৃষি যন্ত্রপাতি ব্যবহারের বিকল্প নেই
উপ-পরিচালক আলী আহম্মদ
কৃষিকণ্ঠ প্রতিবেদক
২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


খামার যান্ত্রিকীকরণের মাধ্যমে ফসল উৎপাদন বৃদ্ধি প্রকল্পের আওতায় ট্রান্সপ্লান্টার যন্ত্রের প্রদর্শনী ও মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ উপলক্ষে চাঁদপুুর সদর উপজেলার বাগাদী ইউনিয়নের ঢালীরঘাট এলাকায় সোমবার বিকেলে এ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।



এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন চাঁদপুুরের কৃষি সমপ্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আলী আহম্মদ। তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন, আধুনিক চাষাবাদে কৃষি যন্ত্রপাতি ব্যবহারের বিকল্প নেই। অতীতে কৃষি শ্রমিকের তেমন কোনো সমস্যা না থাকলেও বর্তমানে এর অবস্থা ভয়াবহ। একদিকে শ্রমিকের স্বল্পতা অন্যদিকে অধিক মজুরি, যে কারণে উৎপাদন খরচ অনেকটা বাড়িয়ে দেয়। এ থেকে উত্তোরণের অন্যতম পথ হলো কৃষিতে যান্ত্রিকীকরণ। এতে শ্রম, সময় এবং অর্থ অনেকাংশে সাশ্রয় হয়। ফসলের অপচয় রোধ করতে সহায়তা করে। চাষাবাদে কৃষি যন্ত্রপাতি ব্যবহারের জন্যে কৃষকদের প্রতি তিনি আহ্বান জানান।



অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চাঁদপুুর সদর উপজেলা কৃি্ষ অফিসার দিল আতিয়া পারভীন, কৃষি অফিসার ইয়াসমিন সুলতানা, উপ-সহকারী কৃষি অফিসার খালেদ মাহমুদ ও ফারুক আহমেদ প্রমুখ।



উপ-সহকারী কৃষি অফিসার আজিজুল হকের সভাপতিত্ব ও কৃষক আলী আশরাফের পরিচালনায় উপস্থিত ছিলেন কৃষক শমসের আলী, বেলায়েত হোসেন, রবিউল হক, তোফাজ্জল খান, ছিদ্দিক গাজী, হুমায়ন কবীর, দিলদার হোসেন ও কৃষক-কৃষাণীসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।



 


হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

২৯-সূরা আনকাবূত


৬৯ আয়াত, ৭ রুকু, ‘মক্কী’


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


৬৩। যদি তুমি উহাদিগকে জিজ্ঞাসা কর, আকাশ হইতে বারি বর্ষণ করিয়া কে ভূমিকে সঞ্জীবিত করেন। উহার মৃত্যুর পর উহারা অবশ্যই বলিবে, ‘আল্লাহ’। বল, ‘সমস্ত প্রশংসা আল্লাহরই’। কিন্তু উহাদের অধিকাংশই ইহা অনুধাবন করে না। 


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


 

গৃহের শান্তি স্বর্গের শান্তির চেয়ে কম নয়।                       -গোল্ড স্মিথ।


যার মধ্যে বিনয় ও দয়া নেই সে সকল ভালো গুণাবলী হতে বঞ্চিত।


ফটো গ্যালারি
করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ৫,১২,৪৯৬ ৮,২৪,৩৫,৪৮২
সুস্থ ৪,৫৬,০৭০ ৫,৮৪,৪৩,৫১৫
মৃত্যু ৭,৫৩১ ১৭,৯৯,২৯৪
দেশ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
৭২৫৫৯
পুরোন সংখ্যা