চাঁদপুর। বৃহস্পতিবার ২৪ মার্চ ২০১৬। ১০ চৈত্র ১৪২২। ১৪ জমাদিউস সানি ১৪৩৭
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • চাঁদপুর সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়কসহ আরো ৯ জনের করোনা শনাক্ত, মোট আক্রান্ত ২১৯
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

২২-সূরা : হাজ্জ

৭৮ আয়াত, ১০ রুকু, মাদানী

পরম করুণাাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

৭৮। এবং জিহাদ কর আল্লাহর পথে যেভাবে জিহাদ করা উচিত। তিনি তোমাদিগকে মনোনীত করিয়াছেন। তিনি দীনের ব্যাপারে তোমাদের উপর কোন কঠোরতা আরোপ করেন নাই। ইহা তোমাদের পিতা ইব্রাহীমের মিল্লাত। তিনি পূর্বে তোমাদের নামকরণ করিয়াছেন ‘মুসলিম’ এবং এই কিতাবে ও ; যাহাতে রাসূল তোমাদের জন্য সাক্ষী স্বরূপ হয় এবং তোমরা স্বাক্ষী স্বরূপ হও মানব জাতির জন্য। সুতরাং তোমরা সালাত কায়েম কর, যাকাত দাও এবং আল্লাহকে অবলম্বন কর; তিনিই তোমাদের অভিভাবক কত উত্তম অভিভাবক এবং কত উত্তম সাহায্যকারী তিনি।

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


অন্যকে বারবার ক্ষমা করো, কিন্তু নিজেকে কখনই ক্ষমা করো না।      

-সাইরাস।


যে ধনী বিখ্যাত হবার জন্য দান করে, সে প্রথমে দোজখে প্রবেশ করবে।      

-হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)


ফটো গ্যালারি
অসহায় কৃষক বিল্লাল গাজী
কৃষিকণ্ঠ রিপোট
২৪ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+

৩৭ বছর বয়সী বিল্লাল গাজী। পেশায় কৃষক। গ্রামের বাড়িতেই তার বসবাস। সহজ সরল প্রকৃতির একজন মানুষ তিনি। তার স্ত্রী হাওয়া বেগম। তাদের ২ সন্তান। বড় মেয়ে নাঈমা দাসাদী সরকারি প্রথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণীর ছাত্রী। ছোট ছেলে ইব্রাহিম ৩ বছর বয়সী। মরহুম লোকমান গাজীর ৩ ছেলে। তার মধ্যে বিল্লাল গাজী সবার ছোট। চাঁদপুর সদর উপজেলার কল্যাণপুর ইউনিয়নের দাসাদী গ্রামেই থাকে পরিবারের সবাই।

চাঁদপুর কণ্ঠের প্রতিনিধির সাথে কথা হয় বিল্লাল গাজীর। বিল্লাল স্ত্রী সন্তান নিয়ে ৩ বেলা ভাত ও স্বাভাবিক জীবন যাপন করতে নিয়মিত কৃষি কাজ করতেন। সংসারের অভাব মোচন করতে গ্রামীণ ও আশা এনজিও থেকে ঋণ নিয়ে প্রিজিয়াম জাতের একটি গরু ক্রয় করে। গরুটি দৈনিক ২০ লিটার দুধ দেয় বলে কিনিছেন। কিন্ত ভাগ্যের নির্মম পরিহাস গরুটি তার বাড়িতে আনার পর দুধ দেয় ৬-৭ লিটার। যাক এভাবে কিছুদিন চলতে লাগলো। হঠাৎ দেখা গেল গরুটির মেসটেক রোগ হয়েছে। এতে করে গরুটির পুরো ওলানটি চাক হয়ে গেছে। এ কারণে গরু থেকে আর দোহন করতে পারছে না। পরিশেষে গরুটি কসাইদের কাছে বিক্রি করে দেয়। পরবর্তীতে আরেকটি গরু ক্রয় করে জার্সি জাতের। এ গরু থেকে দৈনিক ১০-১২ লিটার দুধ দোহন করতেন বিল্লাল গাজী। এভাবে কয়েক বছর ভালো চললেও সমিতির ঋণের টাকা ও সংসার চালাতে হিমশিম খেয়ে যান। এরি মাঝে অসাবধনাতার কারণে তার পালিত গরুটি বুকের মধ্যে শিংরিং দিয়ে আঘাত করে। এতে বিল্লাল গাজী প্রচ- ব্যাথা পায়। টাকার অভাবে বিল্লাল ভালোভাবে চিকিৎসা করতে পারছে না। এখন স্ত্রী সন্তান নিয়ে অসহায় জীবন যাপন করছেন।

আজকের পাঠকসংখ্যা
২৩১৭৪১
পুরোন সংখ্যা