চাঁদপুর, বুধবার ২৭ জানুয়ারি ২০১৬। ১৪ মাঘ ১৪২২। ১৬ রবিউস সানি ১৪৩৭
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • চাঁদপুর সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়কসহ আরো ৯ জনের করোনা শনাক্ত, মোট আক্রান্ত ২১৯
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

২২-সূরা হাজ্জ 


৭৮ আয়াত, ১০ রুকু, মাদানী


পরম করুণাাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


১৮। তুমি কি দেখ না যে, আল্লাহ্কে সিজ্দা করে যাহা কিছু আছে আকাশম-লীতে ও পৃথিবীতে, সূর্য, চন্দ্র নক্ষত্রম-লী, পর্বতরাজি, বৃক্ষলতা জীবজন্তু এবং সিজদা করে মানুষের মধ্যে অনেকে? আবার অনেকের প্রতি অবধারিত হইয়াছে শাস্তি। আল্লাহ্ যাহাকে হেয় করেন তাহার সম্মানদাতা কেহই নাই; আল্লাহ্ যাহা ইচ্ছা তাহা করেন। 


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


 


পরিশ্রমী লোকের ঘুম শান্তিপূর্ণ হয়।                     


                           -জর্জ হাবার্ট।       


যে লোক কম কথা বলে চুপ করে থাকে সে অনেক বিপদ আপদ থেকে বেঁচে যায়।             -হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)


 

ফটো গ্যালারি
সাংবাদিকদের ফুলপ্রীতি
ফুলে ফুলে সাজলো চাঁদপুর প্রেসক্লাব প্রাঙ্গণ
কৃষিকণ্ঠ রিপোর্ট
২৭ জানুয়ারি, ২০১৬ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


চাঁদপুর প্রেসক্লাব জনমানুষের কাছে অতি পরিচিতি একটি প্রতিষ্ঠান। ১৯৭৫ সালের জুলাই মাসে এ সংগঠনের প্রতিষ্ঠা। প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মরহুম কামরুজ্জামান চৌধুরী থেকে শুরু করে বর্তমান সভাপতি বি এম হান্নান পর্যন্ত মানুষের দৃষ্টিনন্দন করতে কাজ করে চলছেন নেতৃবৃন্দ। ২০১৫ সালের সভাপতি শহীদ পাটোয়ারী ও সাধারণ সম্পাদক রহিম বাদশার দায়িত্বকালের শেষ সময়ে বাহারি ফুলে ফুলে সাজিয়েছেন চাঁদপুর প্রেসক্লাব প্রাঙ্গণকে।



সৌন্দর্য বর্ধনে চাঁদপুর প্রেসক্লাবের অর্থায়নে করা হয়েছে ফুলের বাগান ও সুসজ্জিত পরিবেশ। প্রেসক্লাব প্রাঙ্গণে শোভা পেয়েছে গোলাপ, গাঁদা, চন্দ্রমলিকা, ইস্টার, কেলেন-দোলা, কচমচ, দো-পাটি, নয়নতারা, কামিগাঁদা, চালরিয়া, ঢেনটাচ, মোরগফুল, পাতা বাহার, ঝাউ ডালিয়া, এরিকেপা, সূর্যমুখী, রঙ্গন, বেলী, হাসনাহেনা, কামেনী, গন্ধরাজ, জুঁই ও শিউলী ফুল। নানা রঙের এসব ফুলে শোভিত হয়েছে প্রেসক্লাব প্রাঙ্গণের তোরণসহ চতুর্দিক। ২০১৪ সালের তৎকালীন সভাপতি গোলাম কিবরিয়া জীবন ও সাধারণ সম্পাদক গিয়াসউদ্দিন মিলনের প্রচেষ্টায় এবং ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটির সহযোগিতায় করা হয় দৃষ্টিনন্দন তোরণ। করা হয় প্রাঙ্গনের চারপাশে ফুলের টব ও আলোকসজ্জার ব্যবস্থাও। যখনি যাঁরা দায়িত্বে আসেন তারা চান প্রেসক্লাবকে কত বেশি দৃষ্টিনন্দন করা যায়। সাবেক সাধারণ সম্পাদক গিয়াসউদ্দিন মিলন বলেন, আমাদের উত্তরসূরিরা বিশাল ভবন তৈরি করে গেছেন বলেন আমরা সৌন্দর্য বর্ধন করার সুযোগ পেয়েছি। প্রত্যাশা থাকবে পরবর্তী নেত্বত্ব এ সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে আরো সক্রিয় থাকবেন।



চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সদ্য সাবেক সভাপতি শহীদ পাটোয়ারী ও সাধারণ সম্পাদক রহিম বাদশা বলেন, প্রেসক্লাবের সব কমিটিই এর উন্নয়নে নিরলস কাজ করে গেছেন। আমরা দায়িত্বে এসে এমন প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছি। পূর্বসূরিদের ধারাবাহিকতায় প্রেসক্লাব প্রাঙ্গণে আমরা ফুলের বাগান করেছি। এখন সেসব গাছে নানা রঙের ফুল ফুটেছে। মানুষজন যখন চলতি পথে প্রেসক্লাবের এ ফুল গাছগুলোকে মুগ্ধ চোখে দেখে তখনই আমাদের কাছে ভালো লাগে মনে হয় ভালো একটি কাজ করতে পেরেছি।



এ ব্যাপারে কথা হয় চাঁদপুর প্রেসক্লাবের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক সোহেল রুশদীর সাথে। তিনি জানান, আমাদের পূর্বসূরীরা সৌন্দর্য বর্ধনে যে কাজ করেছেন তার যথাযথ রক্ষণাবেক্ষণ করতে আমরা আন্তরিক। এছাড়া প্রেসক্লাবের যাবতীয় কাজের তদারকির জন্যে আমাদের একজন কেয়ারটেকার রয়েছে। তারপরে প্রতিদিন যে সকল দর্শনার্থী আসেন তাদের প্রতি অনুরোধ থাকবে তারা যাতে ফুলগুলো গাছ থেকে ফুল না ছিঁড়েন। তিনি আরো জানান, সৌন্দর্য বর্ধনে কিছু বিদ্যুতের কাজ আছে সেগুলো আমরা করবো। পর্যায়ক্রমে আরো নতুন কিছু ফুলের গাছ লাগানো হবে।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
২১৬৮৩০
পুরোন সংখ্যা