চাঁদপুর, বৃহস্পতিবার ২৪ ডিসেম্বর ২০১৫ । ১০ পৌষ ১৪২২ । ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৩৭
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • চাঁদপুর সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়কসহ আরো ৯ জনের করোনা শনাক্ত, মোট আক্রান্ত ২১৯
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

২১-সূরা : আম্বিয়া

১১২ আয়াত, ৭ রুকু, মক্কী

পরম করুণাাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।



৮৯। এবং স্মরণ কর যাকারিয়্যার কথা, যখন সে তাহার প্রতিপালককে আহ্বান করিয়া বলিয়াছিল, ‘হে আমার প্রতিপালক! আমাকে একা রাখিও না, তুমি তো শ্রেষ্ঠ মালিকানার অধিকারী।

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন

 


যে ঋণী সে কৃতজ্ঞ নহে।                                                      

  -রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।



 


পবিত্র হওয়াই ধর্মের অর্থ।  

  - হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)

 


ফটো গ্যালারি
সরিষা উৎপাদন বৃদ্ধিতে মৌমাছির চাষ
কৃষি কণ্ঠ প্রতিবেদক
২৪ ডিসেম্বর, ২০১৫ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+

মতলব উপজেলার পৌর দশপাড়া এলাকায় মৌমাছির চাষ করেছেন নাছিমা বেগম। গত সোমবার মৌ চাষের বাঙ্ পরিদর্শন করেন চাঁদপুর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আলী আহম্মদ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মতলব দক্ষিণ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ তাজুল ইসলাম।

কৃষিবিদ আলী আহম্মদ বলেন, সরিষা ক্ষেতে মৌমাছি থাকলে স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি ফলন হয়। মৌমাছি সরিষা গাছের ফুলে পরাগায়ন ঘটায়। এ কারণে সরিষায় দানা বেশি হয় ও ভালো ফলন হয়। তিনি বলেন, একটি বাঙ্ েপ্রায় ৫০ থেকে ৬০ হাজার মৌমাছি ও একটি রাণী থাকে। রাণী মৌমাছি ডিম দেয়। এগুলো "অ্যাফিস মিলিফেরা" জাতের মাছি। সারা দিন মাছিগুলো সরিষার ফুলে পরাগায়ন ঘটায় ও মধু সংগ্রহ করে। প্রায় তিন কিলোমিটার দূরের সারিষা ক্ষেত থেকে মধু সংগ্রহ করে মাছিগুলো। এলাকায় যে পরিমাণ সরিষার আবাদ হয়, তাতে অর্থনৈতিক দিক থেকে মধু চাষের উজ্জ্বল সম্ভাবনা রয়েছে। সরিষাক্ষেতের পাশে বা ক্ষেতে মধুর খামার গড়ে তোলার জন্যে কৃষককে উৎসাহ দেয়া হচ্ছে।

আজকের পাঠকসংখ্যা
২৩২০৯০
পুরোন সংখ্যা