চাঁদপুর, রবিবার ২৬ এপ্রিল ২০১৫ | ১৩ বৈশাখ ১৪২২ | ৬ রজব ১৪৩৬
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

১৯-সূরা : র্মাইয়াম

৯৮ আয়াত, ৬ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহ্র নামে শুরু করছি।



৩৩। আমার প্রতি শান্তি যেদিন আমি জন্মলাভ করিয়াছি, যেদিন আমার মৃত্যু  হইবে এবং যেদিন জীবিত অবস্থায় আমি উথিত হইবে। ৩৪। এই-ই মারইয়াম-তন্ময়-ঈসা। আমি বলিলাম সত্য কথা, যে বিষয়ে উহারা বিতর্ক করে।

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন

 


 

বিদায় গৃঢ় রহস্যই হলো শিক্ষার্থীদের সম্মান করা।

-ইমারসন।



 


বিদ্যান্বেষণের জন্যে যদি সুদূর চীনেও যেতে হয় তবে সেখানে যাও।

              - হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)

 


ফটো গ্যালারি
৬৩ হাজার ৬৫২ হেক্টর জমিতে ধান চাষ
চাঁদপুরে বোরো ধানের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা
মুহাম্মদ আবদুর রহমান গাজী
২৬ এপ্রিল, ২০১৫ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+

চাঁদপুরে এবার বোরো ধানের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। জেলায় ৬৩ হাজার ৬শ' ৫২ হেক্টর জামিতে ধান চাষ হয়েছে। আবহাওয়া অনূকুলে থাকলে ২ লাখ ৪৮ হাজার ৮শ' মেট্রিক টন ধানের ফলন হবে বলে জানিয়েছেন জেলা কৃষি সমপ্রসারণ অধিদপ্তর।

হরেক রকমের ফসলের জনপদ হিসাবে পরিচিতি চাঁদপুর জেলা। এ জেলায় রয়েছে ৮টি উপজেলা। প্রতিটি উপজেলায় নানা রকম ফসল ফলাতে ব্যস্ত কৃষকরা। তবে এ বছর প্রতিটি উপজেলায় তুলনামূলকভাবে ধান চাষ হয়েছে বেশি। জেলার কচুয়া উপজেলায় ১২ হাজার ৮৫ হেক্টর, হাজীগঞ্জে ১০ হাজার ২শ' ২৫ হেক্টর, ফরিদগঞ্জে ১০ হাজার ১ শত ৪০ হেক্টর, মতলব উত্তরে ৯ হাজার ৩শ' ২ হেক্টর, চাঁদপুর সদরে ৫ হাজার ৯শ' পঁচিশ হেক্টর, মতলব দক্ষিণে ৫ হাজার ৮শ' ১৪ হেক্টর, শাহরাস্তিতে ৯ হাজার ৩ শত ২৫ হেক্টর, হাইমচরে ৮ শত ৪০ হেক্টর জমিতে ধান চাষ করা হয়েছে। বৈশাখের মাঝামাঝি হঠাৎ বর্ষণের কারণে ধান ক্ষেত পেয়েছে ভরা যৌবন। এজন্য ভালো ফলনের আশায় কৃষকদের মাঝে আনন্দের জোয়ার বইছে।

সরজমিনে দেখা গেছে জেলায় বিভিন্ন উপজেলার সব স্থানেই বোরো ধানের চাষ করা হয়েছে। গত বছরের তুলনায় এ বছর চাষ বেশি হয় নি। সব জায়গায় কম বেশি ধানের চাষ হলেও কচুয়া ও হাজীগঞ্জে বেশি হয়েছে চাষ। মৌসুম শুরুর আগেই সরকারি উদ্যোগে বোরো চাষের সব ধরনের উপকরণ সরবরাহ চিল পর্যাপ্ত পরিমাণ। সংশ্লিষ্ট বিভাগের নজর দারির কারণে কৃষকের বোরো চাষে বেগ পেতে হয়নি। পানি সরবরাহ ও বিদ্যুৎ ব্যবস্থা আগের তুলনায় ভালো থাকায় সব স্থানেই সমানতালে বেড়ে উঠেছে বোরো ধানের গাছ। ধান ক্ষেতের পরিচর্যার কাজ শেষ, প্রতিটি মাঠেই এখন ধানের শীষ বের হয়েছে। বৈশাখের মাঝামাঝি সময় থেকে শুরু করে জ্যৈষ্ঠ মাসের মাঝামাঝি পর্যন্ত কৃষক নতুন ধান ঘরে তুলতে শুরু করবে। প্রাকৃতিক কোনো দুর্যোগ না হলে ভালো ফলন হবে বলে ধারণা করছেন কৃষকরা।

চাঁদপুর জেলা কৃষি সমপ্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-সহকারী কর্মকর্তা মোঃ আব্দুল মান্নান জানান, চলতি মৌসুমে ৬৩ হাজার ৬৫২ হেক্টর জমিতে ধান চাষ হয়েছে। সে মতে ২ লাখ ৪৮ হাজার ৮৩ শত ৫৪ মেট্রিক টন ধানের ফলন হবে বলে আশা করেন। এখন পর্যন্ত সব মাঠেই বোরো ধানের অবস্থা ভালো আছে। অল্প কয়েক দিনের মধ্যেই পুরোদমে ধান কাটা শুরু হবে।

আজকের পাঠকসংখ্যা
৫৭৩২৮৬
পুরোন সংখ্যা