চাঁদপুর। বৃহস্পতিবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮। ২৯ ভাদ্র ১৪২৫। ২ মহররম ১৪৪০
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৪১-সূরা হা-মীম আস্সাজদাহ,

৫৪ আয়াত, ৬ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

২৩। তোমাদের প্রতিপালক সম্বন্ধে তোমাদের এই ধারণাই তোমাদের ধ্বংস এনেছে। ফলে তোমরা হয়েছো ক্ষতিগ্রস্ত।

২৪। এখন তারা ধৈর্যধারণ করলেও জাহান্নামই হবে তাদের আবাস এবং তারা অনুগ্রহ চাইলেও তারা অনুগ্রহ প্রাপ্ত হবে না।

২৫। আমি তাদের জন্যে নির্ধারণ করে দিয়েছিলাম সহচর যারা তাদের সম্মুখ ও পশ্চাতে যা আছে তা তাদের দৃষ্টিতে শোভন করে দেখিয়েছিল এবং তাদের ব্যাপারেও তাদের পূর্ববর্তী জি¦ন ও মানবদের ন্যায় শাস্তির কথা বাস্তব হয়েছে। তারা তো ছিল ক্ষতিগ্রস্ত।

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন



 


সব সমস্যার প্রতিকার হচ্ছে ধৈর্য ও চেষ্টা।

-প্লুটাস।


ন্যায়পরায়ণ বিজ্ঞ নরপতি আল্লাহ’র শ্রেষ্ঠ দান এবং অসৎ মূর্খ নরপতি তার নিকৃষ্ট দান।



 


ফটো গ্যালারি
শাহরাস্তিতে হামলায় প্রবাসীর স্ত্রী আহত
শাহরাস্তি প্রতিনিধি
১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+

শাহরাস্তিতে বহিরাগতের হামলায় প্রবাসীর স্ত্রীর গুরুতর আহতের অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত শনিবার শাহরাস্তি উপজেলার সূচীপাড়া উত্তর ইউপির শোরসাক গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। হামলায় সৌদিআরব প্রবাসী মোঃ সাহিনের স্ত্রী সুনিয়া বেগম (৩৫) গুরুতর আহত হয়। এ সময় পরিবারের সদস্যরা সুনিয়াকে উদ্ধার করে শাহরাস্তি স্বাস্থ্য কমপ্লেঙ্ েভর্তি করে।

ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার ও এলাকা সূত্রে জানা যায়, ওই গ্রামের জামালের স্ত্রী ফাতেমা বেগম অতর্কিতভাবে সুনিয়াকে মারধর করে। এ বিষয়ে সৌদিআরব প্রবাসী মোঃ সাহিন জানান, পূর্ব শ্রত্রুতার জের ধরে তার ছোট ভাইসহ পরিবারের সাথে বিরোধ চলে আসছে। তাকে সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্যে তাদের এ কৌশল। তারা ফাতেমাকে টাকার বিনিময়ে গালমন্দ ও মারধর করতে প্রতিনিয়ত এ বাড়িতে নিয়ে আসে।

সাহিন আরো বলেন, আমি প্রবাসে থাকি। বাড়িতে আমার স্ত্রী, ছেলেমেয়েকে নিয়ে বাড়িতে বসবাস করছে। আমি না থাকার কারণে তারা আমার স্ত্রীর সাথে বিভিন্ন সময়ে খারাপ আচরণ করে আসছে। তিনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট এ ঘটনার তদন্ত করে তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন।

এ বিষয়ে আহত সুনিয়া বেগম জানান, আমার স্বামী প্রবাসে থাকে। আমি বাড়িতে ছেলেমেয়ে নিয়ে বসবাস করছি। আমার দেবর ও ননদ তারা বিভিন্নভাবে আমার ওপর শারীরিকভাবে নির্যাতন চালায়। আমার স্বামী প্রবাসে থাকাকালে জমি ক্রয়ের জন্য টাকা পাঠায়। আমার শ্বশুর তার নামে জায়গা নিয়ে যায়। এ থেকে পরিবারের সদস্যরা বহিরাগত মহিলা দিয়ে আমাকে বিভিন্ন সময়ে হুমকি প্রদান ও মারধর করে। তারা আমাকে মেরে ফেলারও হুমকি দেয়। আমি জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। তারা আমাদেরকে সামাজিকভাবে হেয়প্রতিপন্ন করার জন্যে নানা অপপ্রচার করছে। আমি এ বিষয়ে প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করছি। এ ঘটনায় ফাতেমা বেগমের সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

আজকের পাঠকসংখ্যা
৩২৫৪৮৪
পুরোন সংখ্যা